বৃহস্পতিবার , জুন 17 2021
সদ্য সংবাদ
Home / গুরুত্বপূর্ণ / ৪৯ দিন পর মহাসড়কে চলছে দুরপাল্লার বাস, স্বস্তিতে শ্রমিক

৪৯ দিন পর মহাসড়কে চলছে দুরপাল্লার বাস, স্বস্তিতে শ্রমিক

নিজস্ব প্রতিবেদক || যমুনাপ্রবাহ.কম

আপডেট সময়: ১২:২৫ ঘন্টা: ২৬ মে, ২০২১

সিরাজগঞ্জ: টানা ৪৯ দিন পর সারাদেশের মতো উত্তরের মহাসড়কে চালু হয়েছে দূরপাল্লার বাস। এতে সিরাজগঞ্জের মহাসড়কগুলো ফিরে এসেছে আগের চিরচেনা রুপে। শ্রমিকদের অবয়বে ফুটে উঠেছে স্বস্তির রেখা।

সোমবার (২৪ মে) সকাল থেকেই বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়কে উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা দূরপাল্লার বাস চলাচল করতে দেখা গেছে। গাড়ীর চাপে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কড্ডার মোড়, মুলিবাড়ী ও কোনাবাড়ি এলাকায় মাঝে মাঝে মধ্যে ছোট আকারে যানজটও দেখা গেছে। এছাড়াও শহরের এসআই, অভি, সেবা লাইনসহ বিভিন্ন কাউন্টার থেকে ঢাকা, চট্টগ্রাম অভিমূখে ছেড়ে গেছে দূরপাল্লার বাস।

সরেজমিনে বিভিন্ন বাস টার্মিনালে খোঁজ নিয়ে জানা দেখা যায়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতি আসনে একজন করে যাত্রী নিয়েই চলাচল করছে বেশিরভাগ বাস। কিছু কিছু বাসের ইঞ্জিন কভারে যাত্রীদের গাদাগাদি করে বসিয়ে নিয়ে যেতেও দেখা যায়। তবে শ্রমিকদের দাবী নিম্ন আয়ের শ্রমিকরা অতিরিক্ত ভাড়া দিতে না পারায় ইঞ্জিন কভারে বসে যাচ্ছেন।

শ্যামলী, শাহজাদপুর এক্সপ্রেস, এসআর পরিবহণসহ বেশ কিছু বাসের ভেতরে দেখা যায় দুটি আসনে একজন করে যাত্রীই ভ্রমণ করছেন। আগের থেকে ৬০ শতাংশ বেশি ভাড়া দিয়ে যাচ্ছেন যাত্রীরা।

বনপাড়ার যাত্রী রেজাউল করিম বলেন, আমি ঢাকা থেকে চারশো টাকা ভাড়া দিয়ে এক সিট নিয়ে এসেছি। আগের ভাড়া ছিল আড়াইশো টাকা।

এসআই পরিবহণের সুপার ভাইজার ইমরান বলেন, আমরা সরকার নির্ধারিত ৬০ শতাংশ ভাড়া বেশি নিয়ে যাত্রী পরিবহণ করছি। তবে কিছু কিছু যাত্রী বেশি ভাড়া চাইলে তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠছেন-এতে আমরা বিপাকেই পড়ছি।

একতা পরিবহনের চালক বলেন, ইঞ্জিন কভারে মফিজ যাত্রীদের নেয়া হয়েছে। তারা মূল ভাড়ারও অর্ধেক দেন। এরা খুব গরীব মানুষ। এদের ক্ষেত্রে আমাদের কিছুই করার থাকে না। এদিকে দীর্ঘদিন পর সরকার বাস চলাচলের অনুমতি দেয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্ট পরিবহণ শ্রমিকরা।

শ্যামলী পরিবহণের চালক আব্দুল গনি, হানিফ পরিবহণের হেলপার মনিরুল, শাহজাদপুর এক্সপ্রেসের সুপার ভাইজার জহিরুলসহ অনেকেই বলেন, টানা ৪৯ দিন পর আজ গাড়ী নিয়ে বের হয়েছি। সরকার অনেকদিন পর হলেও একটি সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। করোনার প্রভাবে গতবছর থেকেই বাসশ্রমিকরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এবারও একই অবস্থা। দীর্ঘদিন বাস বন্ধ থাকায় অনেকেই ঋণগ্রস্থ হয়ে পড়েছেন। কেউ কেউ ঘরের সম্পদও বিক্রি করে সংসার চালিয়েছেন। সব কিছু চালু থাকলেও শুধু দূরপাল্লার বাস বন্ধ রাখায় শ্রমিকরা এমন ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে বলে দাবী করেন তারা।

শ্রমিকেরা বলেন, আমরা কোন সাহায্য চাই না। গাড়ী চালাতে চাই। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সরকার নির্ধারিত ভাড়া নিয়ে গাড়ী চালালে তো কোন সমস্যা নাই। সিরাজগঞ্জ জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সুলতান মাহমুদ বলেন, সিরাজগঞ্জের  সাড়ে হাজার বাস শ্রমিকের মধ্যে প্রায় ১৫শ শ্রমিক দূরপাল্লার বাসের সাথেই সম্পৃক্ত। সরকার দূরপাল্লার বাস চলাচলের অনুমতি দেয়ায় অনেকটাই স্বস্তির নিঃস্বাশ ফেলেছে এসব শ্রমিকরা। ৪৯ দিন বা বন্ধ থাকার কারণে শ্রমিকরা একেবারেই অসহায় হয়ে পড়েছিল।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসাদ্দেক হোসেন জানান, সোমবার সকাল থেকেইু স্বাস্থ্যবিধি মেনে দূরপাল্লার বাস চলাচল করছে। মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে প্রতি দুটি আসনে একজন যাত্রী বসার বিষয়টি পুলিশ নিশ্চিত করছে।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

বেলকুচিতে বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও, কনের বাবার জরিমানা 

নিজস্ব প্রতিবেদক || যমুনাপ্রবাহ.কম প্রকাশ কাল: ২২৫৩ ঘন্টা, জুন  ১৬, ২০২১ সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।