সদ্য সংবাদ
Home / গুরুত্বপূর্ণ / সয়দাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নবীদুল ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে ৩ সপ্তাহে ৮ মামলা

সয়দাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নবীদুল ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে ৩ সপ্তাহে ৮ মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ

সয়দাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নবীদুল ইসলাম।

যমুনাপ্রবাহ.কম: ৮/১০টি বসতবাড়ি ভাংচুর, লুটপাট ও প্রতারনার অভিযোগে মাত্র ২০দিনের ব্যবধানে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নবীদুল ইসলাম ও তার বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে ৮টি মামলা হয়েছে। এছাড়াও দলীয় নেতাকর্মী এবং সাধারন মানুষের উপর অত্যাচার ও নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসক এবং জেলা আওয়ামীলীগের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন তারই দলের নেতাকর্মীরা।

বসতবাড়ি ভাংচুর, লুটপাটের অভিযোগে এনে ২৮ জুলাই সদর থানায় প্রথম মামলাটি দায়ের করেন সয়দাবাদ ইউনিয়নের হাট সারটিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে মো: বাবু।

এই মামলায় আদালত থেকে জামিন নিয়ে এলাকায় গিয়ে ইউনিয়নের ডিগ্রির চর গ্রামের দিনমজুর শাহ আলম নিলুকে পূর্ব শক্রতার জেরধরে মারপিট করে এবং কুপিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেয় নবীদুল ও তার বাহিনীর সদস্যরা। এ ঘটনায় আহত নিলুর স্ত্রী সাবিনা বেগম বাদী হয়ে ৬ আগষ্ট দ্বিতীয় মামলাটি দায়ের করেন।

এদিকে, বসতবাড়ি ভাংচুর, লুটপাটের অভিযোগে এনে ১৬ আগষ্ট আমলী আদালতে একই দিনে ৫টি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীরা।

বাদীপক্ষের আইনজীবি এ্যাড: নজরুল ইসলাম জানান, হাট সারটিয়া গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে সাদ্দাম হোসেন, একই গ্রামের মৃত আবু হানিফের ছেলে রেজাউল করিম, মৃত আজাহার আলীর ছেলে আয়নাল, জামালের স্ত্রী কুলসুম বেগম ও মৃত মান্নানের ছেলে বাবু বাদী হয়েছে মামলাগুলো দায়ের করেন। প্রতিটি মামলায় নবীদুল ইসলাম ও তার ভাই আব্দুল মোমিনসহ তাদের বাহিনীর সদস্যদের আসামী করা হয়েছে। আদালত মামলাগুলো আমলে নিয়ে সদর থানার ওসিকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

একটি বসঘরের আসবাবপত্র ভাংচুরের চিত্র।

এছাড়াও ট্রাকে পাথর লোড-আনলোড ব্যবসায় প্রতারনার অভিযোগ এনে ইউপি চেয়ারম্যান নবীদুল ইসলামের বিরুদ্ধে ১১ আগষ্ট সদর আমলী আদালতে একটি প্রতারনা মামলা করেছেন তার এক সময়ের ব্যবসায়ী পাটনার মুলিবাড়ি গ্রামের হাজী মজনু সেখ।

বাদীপক্ষের আইনজীবি এ্যাড: নজরুল ইসলাম জানান, মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পিবিআইকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

অপরদিকে, দলীয় নেতাকর্মী এবং সাধারন মানুষের উপর অত্যাচার ও নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে ১১ আগষ্ট জেলা প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন তারই দলের নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে সয়দাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল আজিজ মন্ডল বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নবীদুল ইসলাম ও তার বাহিনীর সদস্যরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। কেউ তাদের অপকর্মের প্রতিবাদ করলেই নেমে আসে নির্যাতন। সাজানো ও মিথ্যা মামলা দিয়ে করা হয় হয়রানী। আমরাও তার কাছে ধরাশয়ী। যে কারনে প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগের কাছে বাহিনীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছি। অভিযোগপত্রে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের বেশ কয়েকজন নেতা এবং ইউনিয়নের সাবেক ও বর্তমান জনপ্রতিনিধিরা স্বাক্ষর করেছেন।

রান্নার চুলাও ভাংচুর করেছে দূবৃত্তরা।

এসব মামলা ও অভিযোগের কপি হাতে পাওয়ার পর শনিবার (২১ আগষ্ট) সরেজমিন হাট সারটিয়া ও ডিগ্রির চর গ্রামে গিয়ে হামলা ও লুটপাটের ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। ক্ষতিগ্রস্থ বাড়িঘরে গিয়ে দেখা যায় ভাংচুর ও লুটপাটের চিত্র এখনও বিদ্যমান। ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে আছে ক্ষতিগ্রস্থ টিভি, ফ্রিজ, আলমারী, খাট, সোকেস, ড্রেসিং টেবিল, সেলাই মেশিন ও সংসারের আসবাবপত্র। পানি খাওয়ার গøাস ও রান্না চুলাও হামলা থেকে রেহাই পায়নি। আতংকে বাড়িতেই দিন কাটছে নারী ও শিশুদের। কিন্তু পলাতক রয়েছেন এসব বাড়ির অধিকাংশ পুরুষ সদস্যরা।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম জানান, ভুক্তভোগীরা যাতে ন্যায় বিচার পায় সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। সাধারন মানুষের উপর নির্যাতনকারী ও বেপরোয়া হয়ে উঠা ব্যক্তিরা কোন দলের বা কোন পদে রয়েছে সেটি দেখা হবে না। অপরাধ করলে সাজা পেতেই হবে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নবীদুল ইসলাম বলেন, বসতবাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও ক্ষয়ক্ষতির ঘটনা সত্য। কিন্তু এসবের সাথে আমি জড়িত নই। আমার ভাই ইউপি সদস্য আব্দুল মোমিন ও তার সমর্থকরা এ জন্য দায়ী। যড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলাগুলোতে আমাকে জড়ানো হয়েছে। সঠিক তদন্ত হলে প্রকৃত সত্য বেড়িয়ে আসবে।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে শহীদ শেখ রাসেল দিবস উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ যমুনাপ্রবাহ.কম: নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *