সদ্য সংবাদ
Home / গুরুত্বপূর্ণ / শোবার ঘরে স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ, রহস্য উদঘাটনে পুলিশের তিন বাহিনী

শোবার ঘরে স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ, রহস্য উদঘাটনে পুলিশের তিন বাহিনী

জহুরুল ইসলাম, বেলকুচি প্রতিনিধি


যমুনাপ্রবাহ.কম
সিরাজগঞ্জের বেলকুচি পৌর এলাকার কামারপাড়া গ্রামে নিজ ঘরে স্বামী ও অন্তঃসত্তা স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। ক্রবার (২৯ অক্টোবর) সকাল ১০ টার দিকে খবর পেয়ে পুলিশ কামারপাড়া গ্রামের ঘোষপাড়া বাড়ী থেকে রক্তমাখা দুটি লাশ উদ্ধার করেন।
প্রতিবেশি অমল ঘোষ জানান, ১ বছর আগে কামারপাড়া গ্রামের দিজুগোপাল ঘোষের ছেলে গৌরাঙ্গ ঘোষের সাথে ঢাকা টঙ্গী এলাকার তপন ঘোষের মেয়ে তমা ঘোষের সাথে বিয়ে হয়। তবে মাঝে মাঝে নানা কারণে স্বামী-স্ত্রীর মধ্য পারিবারিক দ্বন্ধ চলে আসছিল। সকালে শুনতে পারি তাদের নিজ ঘরে গৌরাঙ্গ ও তমার রক্তমাখা লাশ পড়ে আছে। তবে মৃত্যুটা রহস্যজনক মনে হচ্ছে আমাদের কাছে। রাতে দুজন মানুষের এমন মৃত্যু হলো কেউ কোন সারা শব্দ শুনলোনা। তবে কি কারনে এমন মৃত্যু তা উন্মোচন হওয়া দরকার।
গৌরাঙ্গের ছোট ভাই আনন্দ ঘোষ জানান, আমি অন্য ঘরে শুয়েছিলাম। পরে সকালে মার চিতকারে ঘুম থেকে উঠে দেখি দাদা ঝুলে আছে, আর বৌদি রক্তমাখা অবস্থায় মেঝেতে পরে আছে। তিনি আরো জানান, ভাড়া বাসা থেকে নিজ বাড়িতে চার দিন ধরে এসেছে তাদের মধ্যে প্রত্যেকটা দিন কলহ লেগে থাকতো।
গৌরঙ্গের মা রুবী রাণী ঘোষ বলেন, রাতে আমরা একসাথে দই ভরে মিষ্টি তৈরির কাজ শেষ করে খাবার খেয়ে যার যার ঘরে ঘুমিয়ে পরি। পরে সকাল ১০ টা বেজে গেছে তবুও ওরা ঘুম থেকে ওঠেনা তখন আমি অনেক ডাকাডাকি করি কোন সারা না পেয়ে প্রতিবেশীদের ডেকে এনে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে গিয়ে দেখি ওরা দুজনে পরে আছে। আমি পাশের ঘরে ঘুমাইছিলাম কিছুই শুনতে পারিনি।
বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা বলেন, শুক্রবার সকালে খবর পেয়ে ঘটনার স্থলে গিয়ে দেখি গোপাল ঘোষের বাড়ীতে তার ছেলে গৌরাঙ্গ ঘোষ (২৮) ও অন্তসত্তা স্ত্রী তমা রাণী ঘোষ (১৯) এর রক্তাক্ত মৃতদেহ পরে আছে ঘরের মেঝেতে। আমরা দুটি লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠাবো। বিস্তারিত সুরাতহাল ও ময়না তদন্তের পর জানাযাবে।
সিরাজগঞ্জ বেলকুচি সার্কেল সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সিদ্দিক আহম্মেদ বলেন, মৃত্যুটি আমাদের কাছে রহস্যজনক মনে হচ্ছে। মৃত্যুর রহস্য উৎঘাটন করতে পুলিশ, সিআইডি ও পিবিআই যৌথ ভাবে কাজ করছে। প্রাথমিক ভাবে তমার শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন না পাওয়া গেলেও তার গলাতে স্পষ্ট দাগ রয়েছে। ধারনা করা যাচ্ছে তমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। আর গৌরাঙ্গর দুই হাতের কবজিতে রগ কাটা রয়েছে এবং গলার উপর থুতনির নিচে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। জানাগেছে তার দেহটি ঝুলন্ত ছিলো। তবে এই মৃত্যুটি অনেকটাই রহস্যজনক বলে আমি মনে করছি। ময়না তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানাযাবে। একসাথে দুটি মৃতদেহ দেখে স্থানীয়রা অনেকটাই আতংকে আছে।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

কাজিপুরে আ.লীগ নেতা শহীদ সরোয়ারের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন-বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ যমুনাপ্রবাহ.কম: সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদ সরোয়ারের উপর সন্ত্রাসী হামলার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *