সদ্য সংবাদ
Home / গুরুত্বপূর্ণ / বাঁধ ভেঙ্গে দেয়ায় ৩ জেলার ৮ উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

বাঁধ ভেঙ্গে দেয়ায় ৩ জেলার ৮ উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

নিজস্ব প্রতিবেদক ||যমুনাপ্রবাহ.কম

প্রকাশ কাল: ২২৩৯ ঘন্টা, জুলাই ৪, ২০২১

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জর শাহজাদপুরে রাউতারা এলাকার অস্থায়ী রিং বাঁধ ভেঙ্গে দেয়ায় সিরাজগঞ্জ, পাবনা ও নাটোর জেলার চলনবিল অধ্যুষিত ৮টি উপজেলার  নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ডুবে গেছে এসব উপজেলার ৪৫ হাজার হেক্টর জমি। বানের পানিতে তলিয়ে গেছে বোনা আমন ও সবজিসহ বিভিন্ন ফসল। শনিবার (৩ জুলাই) শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের রাউতারা স্লুইচ গেট এলাকায় এ বাঁধ কেটে দেয়া হয়েছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন।

রোববার (৪ জুলাই) মুন্নাফ হোসেন, সৌরভ সরকার, সোহেল মোল্লা, আব্দুল আলীম, জোবায়ের হোসেন, তানভির রহমান, নিরব হোসেন, সাকিব হোসেন ও আবু সাইফ নামে স্থানীয় একাধিক কৃষক অভিযোগ করে বলেন, এ অঞ্চলের ফসল রক্ষায় পানি উন্নয়ন বোর্ড গত ৩০ আগে ২ কোটি টাকা ব্যয়ে অস্থায়ী এ রিং বাঁধটি নির্মাণ করে। চলতি বছরের ২৮ জুন বাঁধের মেয়াদ শেষ হওয়ায় কর্তৃপক্ষ বাঁধটি পরিত্যাক্ত ঘোষণা করে এবং পাহারা সরিয়ে নেয়। গত  কয়েদিন ধরে যমুনা ও বড়াল নদীর পানি বাড়তে থাকে।

এ অবস্থায় শনিবার ভোররাতে স্থানীয় মাছ শিকারী ও নৌযান শ্রমিকরা তাদের সুবিধার্থে বাঁধটি কেটে দেয়। বাঁধ কেটে দেয়ার মুহুর্তেই ২০০ মিটার এলাকা ধসে যায়। ধীরে ধীরে তা বাড়তে থাকে। এর ফলে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর, উল্লাপাড়া, পাবনার চাটমোহর, ফরিদপুর, ভাঙ্গুড়া ও নাটোর জেলার গুরুদাসপুর, সিংড়া এবং বড়াইগ্রাম উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। বানের পানিতে এসব অঞ্চলের বিভিন্ন ফসল তলিয়ে গেছে।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম বলেন, ইরি-বোরো ফসল রক্ষার্থে শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের রাউতারা স্লুইচ গেট সংলগ্ন লোহাইট অস্থায়ী রিং বাঁধটি নির্মাণ করা হয়। ধান কাটা হয়ে যাওয়ায় পাহারা সরিয়ে নেওয়ায় স্থানীয়রা বাঁটি কেটে দিয়েছে। আমরা ওখানে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। এটি বাস্তবায়ন হলে এ সমস্যটি আর থাকবে না।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

প্রেমিকা ও তার মাকে দায়ী করে ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক সিরাজগঞ্জ যমুনাপ্রবাহ.কম:  মৃত্যুর জন্য প্রেমিকা ও তার মাকে দায়ী করে প্রেমিকার ছবিসহ ফেসবুকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *