শনিবার , জুলাই 31 2021
Home / দূর্ঘটনা / প্রকাশিত সংবাদের বিপরীতে রাজাপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি গোলাম মোহাম্মদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত সংবাদের বিপরীতে রাজাপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি গোলাম মোহাম্মদের প্রতিবাদ

গত ২৫ জুন, ২০২১ইং তারিখে দৈনিক যমুনা প্রবাহ, দৈনিক কলম সৈনিক ও দৈনিক যুগের কথাসহ সিরাজগঞ্জ থেকে প্রকাশিক বেশকিছু পত্রিকা ও অনলাইন নিউজ পোর্টালে “বেলকুচিতে মাদ্রাসার জায়গায় মার্কেট: লভ্যাংশ যাচ্ছে আওয়ামীলীগ নেতার পকেটে” শীর্ষক সংবাদের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বেলকুচি উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম মোহাম্মদ।
তার প্রতিবাদলিপিতে তিনি বলেন-
আমি গোলাম মোহাম্মদ, সভাপতি রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, গত ২৫ জুন উল্লেখিত পত্রিকাগুলোতে সমেশপুর -দারুল উলুম কওমী মাদ্রাসা হবে ভেঙ্গে দিয়ে নির্মিত মার্কেটের ভাড়া ও অগ্রিমের টাকা আত্মসাতের বিষয়ে আমার বিরুদ্ধে যে সংবাদ প্রকাশ করানো হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন।
প্রকৃত ঘটনা হলো, আমাকে দীর্ঘদিন যাবত সমেশপুর গ্রামবাসী উক্ত মাদ্রাসাটি পরিচালনার জন্য কমিটির সেক্রেটারী হিসাবে দায়িত্ব দিয়েছে। সে মোতাবেক মাদ্রাসার শিক্ষকদের বেতন, লিল্লাহ বোডিংসহ অন্যান্য ব্যয় নির্বাহ করার জন্য মাদ্রাসার পাশে কিছু দোচালা টিনের দোকান স্থাপন করে মাসিক ভাড়া আদায় ও স্থানীয়ভাবে অনুদানের মাধ্যমে মাদ্রাসাটি পরিচালিত হয়ে আসছে। এমতবস্থায় মাদ্রাসার নামের নিজস্ব জায়গায় মার্কেট নির্মাণের বিষয়ে কমিটির সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয়। সে অনুযায়ী মাদ্রাসার অর্জিত আয়ের টাকা ও অন্যান্যভাবে অর্থ সংগ্রহ করে একতলা বিশিষ্ট ইমারত নির্মাণ করা হয় এবং ২৮টি দোকান ভাড়া দেয়া হয়। পাশাপাশি মাদ্রাসা নিয়মিতভাবে চালু থাকে। উক্ত দোকান বরাদ্দ বাবদ অগ্রিম ও মাসিক ভাড়া আদায়ের জন্য মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ও কমিটির কোষাধ্যক্ষ মওলানা গোলাম আজমকে দায়িত্ব দেয়া হলে আদায়কৃত সকল অর্থ তিনি সংরক্ষণ করেন। অত:পর আমি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ওপেন হার্ট সার্জারি করে ঢাকায় চিকিসাধীন ছিলাম। ওই সময়ে তকালিন বেলকুচি উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলীর হস্তক্ষেপে মাদ্রাসা ঘরটি ভেঙ্গে ফেলা হয়। স্থাপিত মাদ্রাসার খালি জায়গাসহ সমেশপুর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠটি দখলে নিয়ে মাদ্রাসাটি বন্ধ করে দেয়া হয়। তিনি ক্ষমতার অপব্যবহার করে মাদ্রাসা মার্কেটের কিছু দোকান নতুন করে বরাদ্দ দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা অগ্রিম গ্রহণ করে আত্মসাত করেন। আমার অসুস্থতার সুযোগে গ্রামর কিছু সংখ্যাক লোকজনকে ডেকে কমিটির সভাপতি/সেক্রেটারির অনুপস্থিতিতে অবৈধভাবে কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন এবং একক আধিপত্য বিস্তার করে মাদ্রাসা বন্ধ করে মার্কেটের ভাড়া ও অগ্রিমের টাকা ইচ্ছামতো আদায় ও আত্মাসাত করে। আমি সুস্থ হয়ে যখন তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করি তখন মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক গোলাম আজমের সাথে যোগসাজসে কোন হিসাব না দেয়ায় আদালতে অভিযোগ করেছিলাম। পরে তারা হিসাব দেয়ার কথা বলে আমাকে দিয়ে আদালতের অভিযোগ প্রত্যাহার করিয়ে নেন। ২০১৯ সালের সাথে জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময়ে মাদ্রাসা পূণঃপ্রতিষ্ঠা করার জন্য উদ্যোগ নেয়া হয়। দোকান ভাড়া আদায়ের অর্থ ও অন্যান্যভাবে অর্থ সংগ্রহ করে মাদ্রাসার নিজস্ব জায়গায় নির্মিত মার্কেটের দোতলায় মাদ্রাসা পূণ:প্রতিষ্ঠার জন্য পাকা ইমারত নির্মাণ শুরু করেছি। বর্তমানে মাদ্রাসা ঘরের নির্মাণ কাজ চলমান আছে।
আমার সামাজিক মান ক্ষুন্ন করার হীন উদ্দেশ্য নিয়ে একটি স্বার্থান্বেষী কুচক্রীমহল সাংবাদিকদের দিয়ে এমন মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে। মূলত সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকন্দ ও তার স্ত্রী বর্তমান ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সোনিয়া সবুর আকন্দের দুর্নীতি এবং অনিয়মের প্রতিবাদ করায় সাংবাদিকদের দিয়ে এই সংবাদ প্রকাশ করানো হয়েছে। অতএব আমি প্রকাশিত সংবাদটির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
এছাড়াও আমাদের নির্বাচনী এলাকার মাননীয় এমপি মহোদয়ের ছত্রছায়ায় মাদ্রাসায় অর্থ আত্মসাতের কথা উল্লেখ করে সনিয়া সবুরের যে মিথ্যা ও বানোয়াট বক্তব্য সংবাদে প্রকাশ করা হয়েছে আমি তারও তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। অপরদিকে যমুনা টিভিতে যে মনগড়া সংবাদ প্রচার করেছে আমি উহারও জোরালো প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
প্রতিবাদকারী
গোলাম মোহাম্মদ
সভাপতি রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ
বেলকুচি, সিরাজগঞ্জ।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

শাহজাদপুরে বন্যার পানিতে গোসল করতে নেমে শিক্ষার্থী নিখোঁজ

উপজেলা প্রতিনিধি || যমুনাপ্রবাহ.কম শাহজাদপুর : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের রাউতারা স্লুইচগেট সংলগ্ন বন্যার …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।