সদ্য সংবাদ
Home / খেলাধুলা / ক্রিকেট / ‘নতুন প্রস্তাবে’ বিসিবির সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় লঙ্কান বোর্ড

‘নতুন প্রস্তাবে’ বিসিবির সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় লঙ্কান বোর্ড

খেলাধুলা ডেস্ক || যমুনাপ্রবাহ.কম

শােনা গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি) নাকি দুইভাগে ভাগ করে কোয়ারেন্টিনের প্রস্তাব দিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিবি)। খবরটা নিশ্চিত হওয়া না গেলেও বিসিবি নিজেদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে ঠিকঠাক মতো। ২০ সেপ্টেম্বর থেকে হোটেলে চলছে খেলোয়াড়দের কোয়ারেন্টিন। তবে প্রশ্ন হলো শ্রীলংকা সরকার তাদের দেশে সাত দিনের কোয়ারেন্টিনে আসলেই কি রাজি? এ প্রশ্নের মধ্যেই আবার নতুন খবর। লঙ্কান ক্রিকেড বোর্ড বৃহস্পতিবার নতুন প্রস্তাব পাঠিয়েছে যে তারা এখন বিসিবির সিদ্ধান্তের অপেক্ষায়। ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সফর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এসে যাবে। যদিও যার বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি খবরটি ছেপেছে, সেই সূত্রটি সিরিজ আয়োজনের পক্ষেই কথা বলেছেন। সূত্রের বিশ্বাস, নতুন প্রস্তাবে রাজি হয়ে শ্রীলঙ্কায় তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে আসবে বাংলাদেশ দল।

১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনের যে কড়া গাইডলাইন শুরুতে পাঠিয়েছিল এসএলসি, পরদিনই বিসিবি সেটি প্রত্যাখ্যান করে স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, এই শর্তে তারা শ্রীলঙ্কায় যাবে না। বৃহস্পতিবার রাতে নাকি এসএলসি নতুন প্রস্তাব ও গাইডলাইন পাঠিয়েছে। এখন অপেক্ষায় আছে বাংলাদেশের সিদ্ধান্ত জানার।

এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত একটি সূত্র ডেইলি মিররকে জানিয়েছে, ‘আমরা চাই এই সিরিজটি হোক, কারণ এটার পরই আছে লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ (এলপিএল)। বিশ্বের অনেক দেশের খেলোয়াড় এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন, আমরা তাই একটি দেশের (বাংলাদেশ) বিপক্ষে খেলে বিশ্বকে দেখাতে চাই কীভাবে আমরা সবকিছু আয়োজন করবো।’

নতুন প্রস্তাবে নাকি বিসিবির সম্মতি মিলেছে। তাই সিরিজ আয়োজনের বড় সম্ভাবনা দেখছে সূত্রটি, ‘আমাদের দেশ বাংলাদেশের চেয়ে নিরাপদ। তাদের খেলোয়াড়রা এই দেশে এসে নিরাপদে থাকবে। আমরা তাদের জবাবের অপেক্ষায় আছি। নতুন গাইডলাইনে দুই দেশ সম্মত হয়েছে, তাই আশা করছি সিরিজটি এগোবে।’

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

নারী ফুটবলার হিসেবে বিকেএসপিতে খেলার সুযোগ পেলেন অয়ন্ত মাহাতো

তাড়াশ প্রতিনিধি|| যমুনাপ্রবাহ.কম সিরাজগঞ্জের আদিবাসী প্রমিলা একাডেমির খেলোয়াড় অয়ন্ত মাহাতো (১২) বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *