সদ্য সংবাদ
Home / সিরাজগঞ্জ / রায়গঞ্জ / টেন্ডার ছাড়াই ৫ লাখ টাকার গাছ ৭০ হাজার টাকায় বিক্রি !

টেন্ডার ছাড়াই ৫ লাখ টাকার গাছ ৭০ হাজার টাকায় বিক্রি !


রায়গঞ্জ প্রতিনিধি 

যমুনাপ্রবাহ.কম: সিরাজগঞ্জে রায়গঞ্জের সলঙ্গা থানায় সড়ক ও জনপদ কর্তৃপক্ষের যোগসাজশে  ভুঁইয়াগাঁতি বাইপাস সড়কের গাছ কাটার মহোৎসব শুরু হয়েছে। টেন্ডার ছাড়াযই ৫ লাখ টাকার গাছ মাত্র ৭০ হাজার টাকায় বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।

জানাযায়, উপজেলার সলঙ্গা থানার ভুঁইয়াগাঁতি বাইপাস সড়কের অনেক পুরাতন ১০টি  আমগাছ ও ১টি নিমগাছসহ মোট ১১ টি গাছ সরকারী কোন টেন্ডার ছাড়াই স্থানীয় মৃত আকবর আলীর পুত্র  মোঃ রফিকুল ইসলাম (৫৫) ৫ লাখ টাকার গাছ  মাত্র ৭০ হাজার টাকায় ক্রয় কাটতে থাকে।

গত ৫ অক্টোবর মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় স্থানীয় সাংবাদিকরা সরকারী রাস্তার গাছ  কাটার বিষয়ে জানতে ঘটনা স্থলে যান। ক্রয়কারী রফিকুল ইসলাম এর কাছে গাছ কাটার বিষয় জানতে চাইলে সে জানায় গাছ গুলো সে ৭০ হাজার টাকায় ক্রয় করেছে। কিন্তু কার কাছ থেকে ক্রয় করেছে তার কোন নাম বলতে সে বাধ্য নয়। গাছ গুলোতে কোন নাম্বার বসানো হয়নি এবং টেন্ডারের কোন কাগজ পত্র দেখাতে পারেনি। গাছ কাটার বিষয়টির তথ্য জানতে সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকোশলী মোঃ দিদারুল আলম তরফদার এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, গাছ কাটার কোন তথ্য আমার জানা নেই। তবে তিনি তাৎক্ষণিক সড়ক বিভাগের কায্য সহকারী আলমগীর হোসেন তার এক সহ কর্মীকে নিয়ে রাত ৮ টায় ঘটনায় স্থলে আসেন এবং গাছ কাটার সদৃশ দেখেন এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন বলে তারা সেখান থেকে চলে যান। তারা কোন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নেওয়ায় সাকুল্য গাছ গুলো লোপাট হয়ে যায়।


এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপদ বিভাগ সাসেক্সের প্রকল্প পরিচালক ড.ওলিউর রহমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি এবিষয়ে কিছু যানেন না জানান। ৫ লাখ টাকার গাছ ৭০ হাজার টাকায় বিক্রি করায় এলাকায় বাসীর মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়ছে। বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য স্থানীয় ঘুড়কা ইউপি সদস্য টাকার বিনিময়ে মেনেজ  করার জন্য নানা ধরনের তদবীর করে যাচ্ছে।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে শহীদ শেখ রাসেল দিবস উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ যমুনাপ্রবাহ.কম: নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *