সদ্য সংবাদ
Home / আন্তর্জাতিক / বিতর্কিত দেশ চীন ও সৌদি আরব জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য হচ্ছে

বিতর্কিত দেশ চীন ও সৌদি আরব জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য হচ্ছে

আন্তর্জাতিক বার্তাকক্ষ, যমুনাপ্রবাহ.কম

বিশ্বের বিতর্কিত দুেটি দেশ জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচিত হতে যাচ্ছে। দেশ দুটি হলো চীন ও সৌদি আরব। যারা নিজেরাই বিশ্বের সবচেয়ে বড় মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী হিসেবে পরিচিত। এছাড়া বর্তমানে মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী দেশ হিসেবে  অভিযুক্ত দেশ রাশিয়াও এই কাউন্সিলের সদস্য হতে যাচ্ছে। খবর বিবিসির। মানবাধিকারকর্মীরা বলছেন, এই তিন দেশ কোনোমতেই মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য হতে পারে না এবং তারা সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে এ ব্যাপারে দ্বিতীয়বার চিন্তা করার দাবি জানিয়েছে। জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের জন্ম হয়েছিল ২০০৬ সালের ১৫ মার্চ। এর উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য হচ্ছে- সদস্য রাষ্ট্রগুলোতে মানুষের মৌলিক অধিকার এবং বাকস্বাধীনতা, ধর্মীয় স্বাধীনতা, নারী অধিকার ইত্যাদি নানা ধরনের মানবাধিকারকে হেফাজত করা। এর সদস্য সংখ্যা ৪৭। মানবাধিকার কাউন্সিলের আগে জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশন বা ইউএনসিএইচআর নামে আরেকটি প্রতিষ্ঠান এসব বিষয় দেখাশোনা করত। কিন্তু খারাপ মানবাধিকার রেকর্ড রয়েছে, এমন কিছু দেশকে এই কমিশনের সদস্য বানানো কেন্দ্র করে যে বিতর্ক শুরু হয়, তার জেরে ওই প্রতিষ্ঠানটিকেই শেষ পর্যন্ত বিলুপ্ত করা হয়। এখন এই জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের বিরুদ্ধেও একই ধরনের অভিযোগ উঠেছে চীন, রাশিয়া ও সৌদি আরবকে সদস্যপদ দেয়ার প্রশ্নে। আর এসব অভিযোগ উঠছে চীনে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলমানদের ওপর ব্যাপক নির্যাতন, রাশিয়ায় বিরোধী দলের ওপর দমন-পীড়ন আর সৌদি রাজপরিবারের নির্দেশে সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যার পটভূমিতে। জাতিসংঘের কর্মকাণ্ডের ওপর নজর রাখে এমন একটি প্রতিষ্ঠান ইউএন ওয়াচ বলছে– ব্যাপারটি যেন অগ্নিসংযোগ করে এমন একটি দলের হাতেই দমকল বাহিনীর দায়িত্ব ছেড়ে দেয়া হচ্ছে।তবে কূটনীতিকরা আশা করছেন, এই তিনটি দেশ যদি কাউন্সিলের সদস্য হয়, তা হলে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো নিয়েও তাদের জবাবদিহিতার মুখোমুখি করা যাবে।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

বেলকুচিতে আইন শৃঙ্খলা ও সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

জহুরুল ইসলাম, উপজেলা প্রতিনিধি || যমুনাপ্রবাহ.কম প্রকাশ কাল: ২২০৭ ঘন্টা, জুন ২২, ২০২১ বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ): …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।