বৃহস্পতিবার , জুন 24 2021
সদ্য সংবাদ
Home / গুরুত্বপূর্ণ / গ্রেফতার এড়াতে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন কলেজ শিক্ষক

গ্রেফতার এড়াতে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন কলেজ শিক্ষক

বগুড়া প্রতিনিধি, যমুনাপ্রবাহ.কম

পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে ঝাঁপ দিয়েছিলেন নদীতে। হয়তো ভেবেছিলেন ডুবসাঁতারে পালিয়ে বাঁচবেন, বাঁচবে সম্মান। কিন্তু সেই ঝাঁপ দেওয়াই কাল হলো কলেজ শিক্ষকের। পাড়ে ভিড়লেন নিথর দেহে। বুধবার (৭ অক্টোবর) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের বাঙ্গালী নদীর চকনশী এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় নদীতে নৌকায় বসে জুয়া খেলার সময় পুলিশ অভিযান চালালে গ্রেফতার এড়াতে নদীতে ঝাঁপ দেন কলেজ শিক্ষক আব্দুল হাই (৩৫)। কিন্তু পাড়ে ভিড়তে পারেননি। ছিলেন নিখোঁজ। পরে উদ্ধার করা হয়েছে তার মরদেহ।

নিহত শিক্ষক আব্দুল হাই বগুড়া ধুনট উপজেলার বেলকুচি গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হক মণ্ডলের ছেলে। তিনি শেরপুর শহরতলীর হামছায়াপুর এলাকায় বসবাস করতেন ও সিরাজগঞ্জের কাজীপুরের আমেনা মনসুর ডিগ্রি কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দিনগত রাত ৯টার দিকে উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের জোড়গাছা আওলাকান্দি ঘাট এলাকায় বাঙ্গালী নদীর মধ্যে নৌকায় জুয়া খেলা চলছিল। গোপন সংবাদ পেয়ে শেরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওসমান গণির নেতৃত্বে একদল পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এসময় পুলিশি উপস্থিতি আঁচ করতে পেরে গ্রেফতার এড়াতে কলেজশিক্ষক আব্দুল হাইসহ বেশ কয়েক জুয়াড়ি নদীতে ঝাঁপ দেন। এরমধ্যে অন্যান্যরা সাঁতরিয়ে নদীর পাড়ে উঠতে সক্ষম হলেও ওই কলেজশিক্ষক বাঙ্গালী নদীতে নিখোঁজ হন। পুলিশের এ অভিযানে সিরাজগঞ্জের কাজীপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র তাছির উদ্দীন (৫০), ধুনট উপজেলার চাঁন্দিয়াড় গ্রামের হেলাল উদ্দীন (৩৮), শেরপুর পৌরশহরের দত্তপাড়া এলাকার মানিক তাম্বলী (৩৫), সুঘাট ইউনিয়নের আওলাকান্দি গ্রামের নৌকার মালিক রফিকুল ইসলামকে (৪০) আটক করে থানায় আনা হয়। এসময় জুয়া খেলার সরঞ্জামসহ নগদ সাড়ে ৩৩ হাজার টাকা জব্দ করা হয়েছে।

এদিকে ঘটনার বেশ কয়েক ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও কলেজশিক্ষক আব্দুল হাই বাড়িতে না আসায় উদ্বেগ-উতকণ্ঠায় পড়েন তার পরিবার। একপর্যায়ে বুধবার সকালে নিহত কলেজশিক্ষকের স্ত্রী আসমা খাতুন থানায় উপস্থিত হয়ে তার স্বামী নিখোঁজের বিষয়টি জানান এবং উদ্ধারে পুলিশের সহযোগিতা কামনা করেন। মূলত এর পরপরেই পুলিশ বিভাগে শুরু হয় তোলপাড়। ডাকা হয় স্থানীয় উপজেলার ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মীদের। তারা দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত নদীতে নিখোঁজ শিক্ষককে উদ্ধারের ততপরতা চালান। প্রায় চার ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে অনুমান এক কিলোমিটার দূরে চকনশী খালের মুখ থেকে নিখোঁজ ওই শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

জেলার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঁঞা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শেরপুর সার্কেল) মো. গাজিউর রহমানসহ ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঁঞা জানান, উদ্ধার হওয়া মরদেহটি নিখোঁজ কলেজশিক্ষক আব্দুল হাইয়ের বলে তার স্বজনরা শনাক্ত করেছেন। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান তিনি।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

পাঁচ শতাধিক মানুষের দেড়কোটি টাকা নিয়ে চম্পট দিলেন এক নারী

নিজস্ব প্রতিবেদক || যমুনাপ্রবাহ.কম প্রকাশ কাল: ২৩৫০ ঘন্টা, জুন ২৩, ২০২১ সিরাজগঞ্জ: করোনা মহামারীতে কর্মহীন …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।