সদ্য সংবাদ
Home / সিরাজগঞ্জ / কাজিপুর / কাজিপুর ইউপি নির্বাচনে আলোচনায় চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান বিপ্লব

কাজিপুর ইউপি নির্বাচনে আলোচনায় চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান বিপ্লব

টি এম কামাল, কাজিপুর প্রতিনিধি

যমুনাপ্রবাহ.কম: আসন্ন ইউপি নির্বাচনে তফসিল ঘোষনা না হলেও সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার ৫নং কাজিপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কাজিপুরের অহংকার প্রয়াত নেতা  মোহাম্মদ নাসিম ও প্রয়াত মরহুম ইসমাইল হোসেনের আদশ্যকে বুকে ধারন করে তারই যোগ্য উত্তরসূরী মেঘাই গ্রামের সন্তান দরিদ্র মানুষের অত্যান্ত কাছের মানুষ জননন্দিত সকলের প্রিয় মুখ সবার পরিচিত কামরুজ্জামান বিপ্লব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে  এবার সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসাবে এলাকাবাসির দোয়া ও সহযোগিতা চেয়েছেন।
কামরুজ্জামান বিপ্লব কাজিপুর ইউনিয়নের মেঘাই   গ্রামের প্রয়াত ইসমাইল হোসেনের ৩ সন্তানের মধ্যে সবার বড় সন্তান। উচ্চশিক্ষিত বিপ্লব রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মার্কেটিংএ এম বি এ করেছেন। লেখাপড়ার পাশাপাশী ছাত্রজীবনেই রাজনিতিতেও ছিলেন সক্রিয়। তিনি ১৯৯১/ ৯২ সালে বগুড়া সরকারি আজিজল হক কলেজে একজন ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মি ছিলেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। রাজনীতির পাশাপাশি নিজ এলাকার উন্নয়নে সামাজিক, সেচ্ছাসেবী, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের বিকাশে বিপ্লবের রয়েছে গুরুত্বপূূর্ণ ভূমিকা।
বিপ্লব একজন রাজনৈতিক পরিবারে সন্তান। পিতা মরহুম ইসমাইল হোসেন কাজিপুরের উন্নয়নে প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের একজন ঘনিষ্ট সহযোগি ছিলেন। তিনি ১৯৯১ থেকে ১৯ ৯৮ পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ২০০১ থেকে ১০ সাল পর্যন্ত সভাপতি ছিলেন, এসময় অনেকবার বিরোধি দল বি এন পির নির্যাতনের স্বীকার হয়েছেন। এমনকি পরবত্তীত্বে ঐ নির্যাতনের কারণে ধুকে ধুকে  তিনি মৃত্যুকে বরণ করেন। মরহুম ইসমাইল হোসেন ৪বার কাজিপুর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন। তারই সূযোগ্য পুত্র বিপ্লব ২০১১ থেকে ১৬ পর্যন্ত সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে উপজেলা আ,লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এবং নিজেকে দক্ষ রাজনিতিবিদ হিসাবে প্রতিষ্ঠালাভে সক্ষম হয়েছেন।  রাজনৌতিক কর্মকান্ডের পাশাপাশী কামরুজ্জামানবিপ্লব বিভিন্ন  মসজিদ, মাদ্রাসার, ইতিমখানা, মন্দ্রিরের উন্নয়নে যুক্ত রয়েছেন। মানুষের জন্য কিছু করার প্রত্যাশা নিয়ে এবং স্বচ্ছতা ও জবাবাদিহিতামূলক কাজ করার প্রত্যায় নিয়ে  তারুন্যদিপ্ত  বিপ্লব  এলাকায় করোনাকালিন সময়ে এবং এর আগে বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসায়  মন্দ্রিরে দান-খয়রাত করেছেন যা এখনও অব্যহত রয়েছে। স্থানীয় ইউনিয়ন যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতাকর্মি সহ বিভিন্ন মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক একসময়ের তুখোড় ছাত্রলীগের নেতা বিপ্লব নিরবে নিবৃত্বে এলাকার মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করে চলেছেন। তিনি সদর ইউনিয়নের আপামর জনসাধারণকে তার বাবা ইসমাইল হোসেনের মতকরে নিজের কর্মের মাধ্যমে  ভালোবাসা দিয়ে আগলে রাখতে চান। এলাকার মানুষের কাছে ইতিবাচক রাজনীতিবীদ হিসেবে বিপ্লবের রয়েছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক আ.লীগ ও সহযোগি অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মিদের মতে, আমাদের এমপি মহদয় যদি বিপ্লব কে  নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনের সুযোগ দেয়, তবে এলাকার উন্নয়ন হবে। সর্বপোরি বিপ্লব দির্ঘদিন এলাকায় স্বচ্ছ ভাবমূত্তি ু ক্লিন ইমেজের জন্য ইউনিয়ন সেবা বৃদ্ধির প্রত্যাশা নিয়ে কাজিপুর ইউনিয়নের উন্নয়নের লক্ষ্যে আধুনিক  ইউনিয়ন বিনির্মাণের আশা নিয়ে আসছে নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দিতা করার প্রত্যাশা করেছেন। সে ক্ষেত্রে  কাজিপুর গড়ার কারিগর একসময়ের জনপ্রিয় প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিম ও মরহুম পিতা ইসমাইল সরকারের আদশ্যকে ধারন করে তাঁর সুযোগ্য সন্তান প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয়ের সহকর্মি হিসাবে সদর ইউনিয়নের উন্নয়নে নিজেকে নিবেদিত করতে চান। জিজ্ঞাসাবাদে বিপ্লব জানান আল্লাহর রহমতে  বাবার রেখে যাওয়া জমি জিরাতের কারণেসংসারে স্বচ্ছলতা রয়েছে। কাজেই মানুষের কল্যাণ ছাড়া অন্য কোন প্রত্যাশা করি না। ইউনিয়নের উন্নয়নে নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

নির্বাচনী কন্ট্রোল রুমে পাল্টে গেল ভোটের ফল: আদালতে স্বতন্ত্র প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ যমুনাপ্রবাহ.কম: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার বাঙালা ইউনিয়নের পশ্চিম সাতবাড়ীয় এবতেদায়ী মাদ্রাসা ভোট কেন্দ্রে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *