সদ্য সংবাদ
Home / সিরাজগঞ্জ / কাজিপুর / কাজিপুরে মাথা উঁচু করে দাড়িয়ে আছে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতার ভাস্কর্য

কাজিপুরে মাথা উঁচু করে দাড়িয়ে আছে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতার ভাস্কর্য

জাতীয় বার্তাকক্ষ || যমুনাপ্রবাহ.কম

সিরাজগঞ্জ: যমুনা বিধৌত সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলা শহরটি জমজমাট বা বড় না হলেও এখানে নজর কাড়ার মতো কিছু স্থাপনা গড়ে উঠেছে। এসব স্থাপনার মধ্যে অন্যতম স্বাধীনতা স্কয়ার। উপজেলা ডাকবাংলোর সামনে স্থাপন করা এই স্বাধীনতা স্কয়ারটিতে মাথা উঁচু করে দাড়িয়ে রয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতার ভাস্কর্য।

মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) সরেজমিনে কাজিপুর উপজেলা পরিষদের অদূরে ডাকবাংলো চত্বরে গেলে ভাস্কর্য ছাড়াও নজর কাড়ে আবহমান বাংলার ঐতিহ্য ও স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসের খোদাই করা চিত্র। ৫তলা ভবন বিশিষ্ট ডাকবাংলোটির সামনের চত্বরেই স্থাপন করা হয়েছে স্বাধীনতা স্কয়ার। এর প্রতিটি বাউন্ডারি দেয়ালে টেরাকোটায় খোদাই করা আবহমান বাংলার চিত্র, ভাষা আন্দোলন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

ডাকবাংলোর সামনেই স্থাপন করা হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিশাল আকৃতির ভাস্কর্য। তার নিচে রয়েছে জাতীয় চার নেতা শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম, শহীদ তাজ উদ্দিন আহম্মেদ, শহীদ এম মনসুর আলী ও শহীদ এইচএম কামরুজ্জামানের ভাস্কর্য। প্রতিটি ভাস্কর্যের গায়ে রয়েছে তাদের বর্ণাঢ্য জীবনী।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জেলা পরিষদের অর্থায়নে নির্মিত ৫তলা ভবন বিশিষ্ট ডাকবাংলোর সামনে উপজেলা পরিষদের জায়গার উপর নির্মিত হয় স্বাধীনতা স্কয়ার। ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে ততকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের ব্যক্তিগত অর্থায়নে প্রায় ৭০ লাখ টাকা ব্যয়ে এটি নির্মাণ কাজ শুরু হয়। পরবর্তীতে ২০১৯ সালে এটির সীমানা প্রাচিরে আবহমান বাংলা, ৫২ থেকে ৭১ এর ঐতিহাসিক চিত্র এবং বর্তমান ডিজিটাল বাংলাদেশের চিত্র সম্বলিত বিভিন্ন শিল্পকর্ম স্থাপনের কাজ শুরু হয়। কাজিপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সিরাজী বাংলানিউজকে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চারনেতার স্মৃতির প্রতি সম্মান জানাতে প্রয়াত আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিমের ব্যক্তিগত অর্থায়নে এখানে এই ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়। পাশাপাশি আমাদের ইতিহাস-ঐতিহ্যের চিত্রও এখানে শোভা পাচ্ছে। এই স্বাধীনতা স্কয়ারটির সৌন্দর্য্যবর্ধণের আরও কিছু কাজ বাকি আছে। খুব শীঘ্রই এটি সম্পন্ন হবে।

তিনি বলেন, আমরা প্রতিটি জাতীয় দিবসে জাতির পিতাকে শ্রদ্ধা জানাতে এই ভাস্কর্যে পুস্পস্তবক অর্পণ করি। এছাড়াও প্রতিদিন শত শত দর্শনার্থী এ ভাস্কর্য দেখার জন্য এখানে আসে। এটির সৌন্দর্য বর্ধণকাজ সম্পন্ন হলে দলে দলে দর্শনার্থীরা এসে ভীড় করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদ হাসান সিদ্দিকী বাংলানিউজকে বলেন,  উপজেলা পরিষদের জায়গাতেই প্রয়াত সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের অর্থায়নে এই ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়েছে। এখানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছাড়াও জাতীয় চারনেতার ভাস্কর্য রয়েছে। এছাড়াও ৫২ এএর ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ এবং বর্তমান ডিজিটাল বাংলাদেশ-এসব বিষয় এখানে প্রতিফিলিত হয়েছে। এগুলোর নিরাপত্তায় আমরা অলরেডি সিসি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে এসেছি। আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে কথা হয়েছে। গোটা বাংলাদেশে যে অশুভ শক্তি কাজ করছে সেই শক্তি যাতে ভাস্কর্যের কোন ধরণের ক্ষতি করতে না পারে সে বিষয়ে আমরা সচেতন রয়েছি।

সূত্র: বাংলানিউজ

আবার চেষ্টা করুন

পূণ: নির্বাচনে নিহত কাউন্সিলর তরিকুলের স্ত্রীর বিপুল বিজয়

নিজস্ব প্রতিবেদক যমুনাপ্রবাহ.কম সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জ পৌরসভার নিহত ৬ নং ওয়ার্ডের পূণ: নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *