সদ্য সংবাদ
Home / সিরাজগঞ্জ / উল্লাপাড়া / উল্লাপাড়ায় ফের বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচনী প্রচার শুরু করছেন আলামিন

উল্লাপাড়ায় ফের বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচনী প্রচার শুরু করছেন আলামিন

উল্লাপাড়া প্রতিনিধি

যমুনাপ্রবাহ.কম: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় তৃতীয় ধাপে ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেলেও বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা করছেন পূর্নীমাগাঁতি ইউপি চেয়ারম্যান আলামিন সরকার।উল্লাপাড়া উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নের দলীয় মনোনয়ন ঘোষনা করেন গত ২২ তারিখ শুক্রবার। দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে এরমধ্যেই আলামিন চেয়ারম্যান মাঠে নেমেছেন নির্বাচন করার জন্য। ২০১৭ সালে পূর্নীমাগাঁতী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমানের মৃত্যুর পর উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটে প্রয়াত চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমানের ভাতিজা আলামিন সরকার গ্রহণযোগ্যতা পায়নি। আঃলীগ থেকে মনোনয়ন পায় তৎকালীন ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম তপন। পরে আঃলীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে গিয়ে মোটরসাইকেল প্রতীকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে বিজয়ী হয়। আলামিন সরকার নির্বাচনের আগে ইউনিয়নে দলীয় কোন পদ পদবী না থাকলে চেয়ারম্যান হওয়ার পর ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ পেয়েছেন। পূর্নীমাগাঁতী ইউনিয়নের দলীয় কোন্দলের কারণে উপ-নির্বাচনে আঃলীগ হারলেও এবার পূর্নীমাগাঁতী ইউনিয়ন আওয়ামি লীগ ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলীয় প্রতীক নৌকা হয়ে কাজ করতে হবে এমনটাই আশাবাদী এই ইউনিয়ন আওয়ামি লীগের সভাপতি রাশেদুল হাসান রাশেদ। তিনি আরো জানান দলীয় পদে থেকে কেউ বিদ্রোহী হয়ে নির্বাচন করলে তার বিরুদ্ধে দলীয় সিন্ধান্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। রাশেদ বলেন দলের ভিতরে থাকা বিদ্রোহী এবং যারা সহযোগিতা করছে তাদের কে দমন করতে পারলে আঃলীগের বিজয় সুনিশ্চিত।

তৃতীয় ধাপে ইউপি নির্বাচনে পূর্ণীমাগাঁতী ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক পেয়েছেন পূর্নীমাগাঁতী ইউনিয়ন আঃলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রেজাউল করিম তপন। এরআগে ও তিনি ২০১৭ সালে উপ-নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেয়ে বর্তমান বিদ্রোহী চেয়ারম্যান আলামিন সরকার এর কাছে হেরে যান। এরআগে আলামিন সরকার বিদ্রোহী হিসেবে উপ-নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে নৌকা কে হারিয়েছে এজন্য এবার তিনি মনোনয়ন পায়নি। আবারও তিনি একই পথে হাঁটছে, বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচন করার জন্য প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন এই মনোনয়ন বঞ্চিত আঃলীগ নেতা।

শনিবার বিকেলে বিপুল লোকসমর্থক নিয়ে আলামিন সরকার গয়হাট্টা বাজারে ঘোষণা দেন আগামী ২৮ নভেম্বর নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন। এই ঘোষণার পর তার নেতৃত্বে বিশাল একটি মিছিল বের করেন। মিছিলটি গয়হাট্টা সালেহা ইসহাক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শেষ হয়। পরে আলামিন সরকার তার কর্মী সমর্থকদের ২৮ নভেম্বর নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান।

About jamuna

আবার চেষ্টা করুন

নির্বাচনী কন্ট্রোল রুমে পাল্টে গেল ভোটের ফল: আদালতে স্বতন্ত্র প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ যমুনাপ্রবাহ.কম: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার বাঙালা ইউনিয়নের পশ্চিম সাতবাড়ীয় এবতেদায়ী মাদ্রাসা ভোট কেন্দ্রে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *